• বৃহস্পতিবার, ২৩ মার্চ ২০২৩, ০৭:৫৩ অপরাহ্ন
শিরোনাম:
চাঞ্চল্যকর বহুল আলোচিত মা ও মেয়ের জোড়া খুনের রহস্য উদঘাটন করল পিবিআই রমজান মাস সামনে রেখে গোসাইরহাট উপজেলা প্রশাসনের বাজার মনিটরিং জোরদার অনুষ্ঠিত হল ফ্রেন্ডস ভিউ’র “ফ্যাশন ফর লাইফ” সিজন ৪ বাগেরহাটে বিশ্ব আবহাওয়া দিবসে র‍্যালি ও উন্মুক্ত সংলাপ অনুষ্ঠিত! বান্দরবান জেলার তরুণ কবি মুহাম্মদ এমরান (পাহাড়ি)রচিত “রমজান মাসের হাসি” কবিতা অসহায় সেই নুরজাহানের ঘর নির্মাণে অর্থ সহায়তা প্রদান করেছেন সংসদ সদস্য রত্না আমিন, ইউএনও সজল চন্দ্র শীল! গণহত্যা দিবস ও মহান স্বাধীনতা দিবসে রাজশাহী জেলা আওয়ামীলীগের কর্মসূচি বিডিরেন ট্রাস্টের ট্রাস্টি বোর্ডের Public Trustee হলেন রামেবির উপাচার্য! প্রযোজক রহমত উল্ল্যাহর বিরুদ্ধে আদালতে মামলা করলেন শাকিব সন্ত্রাসী পাভেল বাহিনীর বিরুদ্ধে দৃষ্টি প্রতিবন্ধীদের মানববন্ধন!




পঞ্চগড়ের সীমান্ত থেকে পুলিশ সদস্যকে ধরে নিয়ে গেছে বিএসএফ

Reporter Name / ৬৫৮ Time View
Update : বৃহস্পতিবার, ১৮ ফেব্রুয়ারী, ২০২১




পঞ্চগড় প্রতিনিধি: পঞ্চগড় সদর উপজেলার মমিনপাড়া সীমান্ত থেকে বাংলাদেশি এক পুলিশ সদস্যকে ধরে নিয়ে গেছে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী-বিএসএফ।

রবিবার (১৪ ফেব্রুয়ারী) দিনগত রাতে নীলফামারি ৫৬ বিজিবির আওতাধীন ওই সীমান্তের ৪৫৩ মেইন পিলার এলাকায় এ ঘটনাটি ঘটে। এ ঘটনায় পতাকা বৈঠকে হবে বলে জানিয়েছে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি)।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, রাত ৯টার দিকে পুলিশ সদস্য ওমর ফারুকসহ তিন জন মমিনপাড়া সীমান্তের কাছে যান। এসময় মমিনপাড়া সীমান্তের বিপরীতে ভারতের সিপাইপাড়া মহল্লার ভারতীয় নাগরিকরা তাদের আটক করেন। পরে সেখান থেকে দুই জন পালিয়ে আসলেও ভারতীয়রা ওমর ফারুককে আটক করে ভারতের চানাকিয়া বিএসএফ সদস্যদের হাতে তুলে দেন।

বিএসএফের কাছে আটক পুলিশ সদস্য ওমর ফারুক পঞ্চগড় জেলা জজ আদালতে নিরাপত্তার দায়িত্বে কর্মরত বলে জানা গেছে। তবে তারা কেন সীমান্ত এলাকায় গিয়েছিলেন সে বিষয়ে বিস্তারিত তথ্য জানাতে পারেনি বিজিবি।
এ বিষয়ে জানতে নীলফামারির ৫৬ বিজিবি অধিনায়ককে ফোন করে কথা বলা সম্ভব হয়নি।

তবে পঞ্চগড় সদর থানার ওসি আবু আক্কাছ আহমদ বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, ওই পুলিশ সদস্য আদালতে বিচারকদের নিরাপত্তার কাজে নিয়োজিত ছিলেন। তার ব্যবহৃত মোটরসাইলেকটি উদ্ধার করে থানায় আনা হয়েছে। তার সঙ্গে আরও দু’জন ছিলেন বলে আমরা শুনেছি। তবে কারা ছিলেন এবং কেন সীমান্ত এলাকায় গিয়েছিলেন এ বিষয়ে আমরা এখনও নিশ্চিত না। এ বিষয়ে তদন্ত চলছে বলে জানান তিনি।

পঞ্চগড়ের অতিরিক্তি পুলিশ সুপার সুদর্শন কুমার রায় জানান, কোন পুলিশ সদস্যকে বিএসএফ ধরে নিয়ে গেছে কি না, তা বিজিবির পক্ষ থেকে এখনো জানানো হয়নি। এ ক্ষেত্রে আমাদের কাছে নাম ও ছবি দিয়ে জানানোর কথা। তবেই আমরা নিশ্চিত করে বলতে পারবো। এ বিষয়ে আমরা খোঁজ খবর নিচ্ছি।





আপনার মতামত লিখুন :

Deprecated: File Theme without comments.php is deprecated since version 3.0.0 with no alternative available. Please include a comments.php template in your theme. in /home/deshytvn/public_html/wp-includes/functions.php on line 5583

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও সংবাদ